ট্রেনের ইঞ্জিন সবসময় চালু রাখা হয় কেন?

0
82
  1. একটি ট্রেনের ইঞ্জিন বিভিন্ন প্রক্রিয়ার পর চালু করতে কম পক্ষে পাঁচ থেকে ছয় মিনিট সময় লাগে, আর এই সময়ে যদি হঠাৎ হলুদ বা সবুজ সিগনাল ছেড়ে যাবার জন্য দেওয়ার হয় তাহলে তাৎক্ষণিক সময়ের মধ্যে সেই সিগনাল ছেড়ে যেতে সময় লেগে যায় ইঞ্জিন বন্ধ থাকলে। তাতে দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা থাকে। তাই ইঞ্জিন গুলি লাইনে থাকলে স্টার্ট বন্ধ করা হয় না।
  2. ট্রেনের ইঞ্জিনগুলিতে এয়ার কম্প্রেসার ব্রেক থাকে। এইগুলি সঠিক কাজ করার জন্য বাতাস প্রেসার প্রয়োজন। আর ইঞ্জিন স্টার্ট না থাকলে এয়ার কম্প্রেসার কাজ করেনা। ব্রেকের সঠিক কাজ করার জন্য এয়ার কম্প্রেসার প্রয়োজন। তাই কোনো জায়গায় যাওয়ার মাঝে ইঞ্জিনের স্টার্ট বন্ধ করা হয় না।
  3. ডিজেল ইঞ্জিনের ক্ষেত্রে স্টার্ট করার জন্য সঠিক সময় পূর্ণ ব্যাটারী চার্জ থাকা প্রয়োজন হয়। যেহেতু ট্রেনের লাইট ও আনুষাঙ্গিক উপকরণের জন্য ব্যাটারির সাহায্যে হয়ে থাকে। তাই এইগুলি ব্যবহারের ফলে ব্যাটারির সঠিক চার্জ কম হবার কারণেই ডিজেল ইঞ্জিনগুলি অল্প সময়ের জন্য স্টার্ট বন্ধ করা হয় না।
  4. ডিজেল ইঞ্জিন স্টার্ট করার সময় তাপমাত্রা কে সর্বত্তম স্তরে করার জন্য অতিরিক্ত জ্বালানি খরচ করতে হয়। তাই বারবার বন্ধ ও চালু করার ফলে অতিরিক্ত জ্বালানি খরচ হবার জন্য ইঞ্জিন চালু অবস্থায় রাখা হয়।

উপরোক্ত কারণগুলির জন্য ইঞ্জিনগুলি লাইনে থাকলেও স্টার্ট বন্ধ করা হয় না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here